পয়েন্ট অফ সেল (POS SYSTEM) ব্যবহারের সুবিধা সমূহ

  •  স্টক ব্যাবস্থাপনা ও পর্যবেক্ষণ: পস সিস্টেম দক্ষ পদ্ধতিতে পণ্যের মজুদ সংরক্ষণে সক্ষমতা প্রদান করে। বিক্রিত পণ্যের হালনাগাদ তথ্য পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে কম মজুদ বিশিষ্ট পণ্যের রি-অর্ডার করা সহজ হয়। এমনকি দিনের কোন সময় কোন নির্দিষ্ট পণ্য বিক্রি হচ্ছে তা পর্যবেক্ষণ করে প্ৰয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব।
  •  বিক্রয় ব্যাবস্থাপনা ও পর্যবেক্ষণ: পস সিস্টেম দোকান বা প্রতিষ্ঠানের বিক্রিত পণ্যের বিল প্রস্তুত এবং বিক্রয়ের পরিসংখ্যান প্রধান করে। যদ্দ্বারা আপনি বুঝতে পারবেন কোন পণ্য জনপ্রিয় এবং বেশি বিক্রি হচ্ছে কোন পণ্য বিক্রয়ে বেশি সময় লাগছে। এ ব্যবস্থা ব্যবহারের মাধ্যমে দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক, বার্ষিক বিক্রয় সংক্রান্ত প্ৰয়োজনীয় তথ্য বা প্রতিবেদন দ্রুত পাওয়া যাবে। দোকান বা প্রতিষ্ঠানের ম্যানুয়াল বা কাগুজে হিসাব নিকাশে সময় কম ব্যায় হবে।

পয়েন্ট অফ সেল (POS SYSTEM) ব্যবহারের সুবিধা সমূহ

  •  গ্রাহক সম্পর্ক ব্যাবস্থাপনা: এ ব্যাবস্থার মাধ্যমে গ্রাহকের লেনদেন সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রস্তুত, পণ্যের বিক্রয় তালিকা গ্রাহকের পছন্দ এবং অপছন্দ বুঝে নতুন পণ্য বা সেবা সম্পর্কে অবহিত করা সম্ভব।
  •  পণ্য ক্রয় ব্যাবস্থাপনা: এ ব্যাবস্থায় পণ্য বা সেবার ধরণ, দাম , ব্র্যান্ড নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ক্ৰয়কৃত পণ্য বা সেবার রেকর্ড সংরক্ষণ করা যায়।

পয়েন্ট অফ সেল (POS SYSTEM) কি? ক্লাউড বেসড পস ব্যবস্থা কেন ব্যবহার করা উচিত?

পয়েন্ট অফ সেল (POS SYSTEM) হল সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার সংবলিত সয়ংক্রিয় পদ্ধতি যা দিয়ে প্রতিষ্ঠানের ক্রয়-বিক্রয় সংক্ৰান্ত আর্থিক লেনদেন নথি ভুক্ত করা হয়। অধিকন্ত পণ্যের স্টক পর্যবেক্ষণ, গ্রাহক সম্পর্ক ব্যাবস্থাপনা, বিক্রয় এবং বিক্রয়পরবর্তী পরিসংখ্যান এবং এসব বিষয়ে অন্যান্য প্ৰয়োজনীয় প্রতিবেদন প্রস্তুত করা যায়। ক্লাউড বেসড সিস্টেম বর্তমানে পস সফটওয়্যারের নতুন ট্রেন্ড। ক্লাউড বেসড পস ব্যবস্থা ইন্টারনেটের সরাসরি এক্সেস করা যেতে পারে এবং প্রচলিত হার্ডওয়্যারে ব্যবহার উপযুগি; খরচ কম, সুবিধা জনক কারণে যেকোনো ইস্থান থেকে আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করে প্রতিষ্ঠানের ক্রয়, বিক্রয়, স্টক ও গ্রাহক বিষয়ক সর্বশেষ তথ্য জানতে পারবেন।